প’র’কী’য়া করায় ঘুমন্ত স্বা’মী’র পু’রু’ষা’ঙ্গ কে’টে দিলেন স্ত্রী!

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে প’রকীয়ার জেরে দাঁ’ড়ালো অ’স্ত্র দিয়ে নিজের স্বা’মীর পু’রুষাঙ্গের অর্ধেক অংশ কে’টে দিল স্ত্রী রেখা আক্তার। আজ মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে চন্ডিগর ইউনিয়নের ধানশিরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর আ’হত অবস্থায় আব্দুল লতিফকে (২৭) উপজে’লা স্বা’স্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চি’কিৎসক উন্নত চি’কিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মে’ডিক্যাল কলেজ হা’সপাতালে প্রেরণ করে। ওই যুবক ধানশিরা গ্রামের মৃ’ত. আব্দুল গফুরের ছে’লে।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, চন্ডিগর ইউনিয়নের ধানশিরা গ্রামের আব্দুল লতিফ বেশকয়েক দিন ধরে অন্য একটি মে’য়ের সাথে প্রে’মের স’ম্পর্ক গড়ে তোলে। এ নিয়ে স্বা’মী-স্ত্রী’র মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে পা’রিবারিক ক’লহ চলছে। এরই জের ধরে আজ মঙ্গলবার বিকালে ঘুমন্ত অবস্থায় স্ত্রী রেখা আক্তার ধা’রালো অ’স্ত্র দিয়ে আব্দুল লতিফের পু’রুষাঙ্গ কে’টে দেয়। এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিজানুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় অ’ভিযুক্ত স্ত্রীকে আ’টক করা হয়েছে। মা’মলা রুজু করা হবে।

৩০ জনের বি’ছানায় যেতে বা’ধ্য করেছেন বাবা

কাঠের দরজায় লেখা ‘সরি আম্মা’। হাতের লেখাটা ১২ বছরের এক কন্যাশিশুর। উদ্ধারকারীরা তাকে সেফ হোমে নিয়ে যেতে এলে তাড়াহুড়ো করে এতটুকু সে লিখে যেতে পেরেছিল।গত দুই বছর ধরে দিনের পর দিন যৌ’ন নি’র্যা’তনের শি’কা’র হয়েছে ওই শিশু। দুই বছরে অন্তত ৩০ জনের বিছানায় যেতে তাকে বাধ্য করেছিল তার বাবা। ম’র্মা’ন্তিক এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের কেরালার মলপ্পুরমে।

তার ওপর নি’র্যা’তন শুরু হয়েছিল, যখন বয়স মাত্র ১০ বছর। বেকার বাবার উপার্জনের সহজ রাস্তা ছিল স্ত্রী ও ১২ বছরের মেয়েকে যৌ’ন ব্যবসায় নামিয়ে দেয়া। দিনের পর দিন নি’র্যা’ত’নের শি’কা’র হতো স্ত্রী-মেয়ে, আর কাঁচা টাকায় হাত ভরাত বাবা। এভাবেই চলছিল।সম্প্রতি জানাজানি হয়ে যাওয়ায় ওই

নাবালিকাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গ্রে’ফ’তার করা হয়েছে মেয়েটির বাবা এবং বাবার দুই বন্ধুকে। দুই কামরায় ছোট কাঠের ঘরের একটা কামরায় মেয়ে থাকত। পাশের ঘরে তার বাবা-মা। যখনই টাকায় টান পড়ত কাউকে না কাউকে মেয়ের ঘরে ঢুকিয়ে দিত বাবা। বিনিময়ে মিলত কাঁচা টাকা। এ ভাবেই দুই বছর ধরে নি’র্যা’তন চলছিল তার ওপর।

গত শনিবার এই ঘটনা সামনে আসে। শনিবার তাকে ঘর থেকে হোমে নিয়ে যায় চাইল্ডলাইন।বাবা হয়ত মেয়ের কথা ভাবেনি, মেয়েকে পণ্য হিসাবে ব্যবহার করেছে, মাও মেয়ের পাশে দাঁড়ায়নি, কিন্তু সে চলে গেলে পরিবারের উপার্জনের রাস্তা যে একেবারেই বন্ধ হয়ে যাবে, উদ্ধারের সময়ও সেটাই সবচেয়ে বেশি ভাবিয়েছে ওই নাবালিকাকে। বাড়ি ছাড়ার আগে তাই ছোট হাত কাঠের দরজায় লিখে দিয়েছে, ‘সরি আম্মা’। সূত্র : এবিপি

আরো পড়ুন স্ত্রী আপনাকে কতোটা ভালোবাসে বুঝবেন যেভাবে সুখী দাম্পত্য কে না চায়, আপনিও নিশ্চয়ই চান যে আপনার স্ত্রীর সঙ্গে বেশ একটা মধুর সম্পর্ক হবে আপনার। কিন্তু ঠিক কতোটা ভালোবাসেন আপনার স্ত্রী, বুঝতে যদি না পারেন তাহলে অবশ্যই খেয়াল করুন এই লক্ষ্মণগুলো।

দিনের মধ্যে কতোবার স্ত্রী আপনাকে আলি'ঙ্গন করেন বা চুম্বন করেন সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। কেননা একটি প্রতিবেদনে জানা গেছে, এক নতুন সমীক্ষা বলছে যে মহিলারা যদি তাদের স্বামীকে ভালোবাসেন তবে তারা তাদের যখন তখন জড়িয়ে ধরে চুম্বন করেন এবং কম ঝগড়াও করেন।

গবেষণায় দেখা গেছে, সাধারণত পু'রুষরা প্রকৃতিগতভাবে মহিলাদের মতো অতোটা রোমান্টিক হন না। তবে কোনো কোনো পু'রুষ স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসার প্রকাশে ঘরের কাজেও অবদান রেখে নিজেদের প্রেম বুঝিয়েছেন।১৬৮ জন দম্পতিকে নিয়ে সম্প্রতি একটি সমীক্ষা চালানো হয়। সেখানে দেখা যায় যে পু'রুষরা নারীদের কাছে বিভিন্নভাবে তাদের অনুভূতি প্রকাশ করছেন।

ওই সমীক্ষায় দেখা গেছে, নারীরা যে পু'রুষদের ভালোবাসেন তাদের সঙ্গে ঝগড়া কম করতেই পছন্দ করেন এবং যখন তখন নিজেদের প্রেম বোঝাতে চান। অন্যদিকে পু'রুষরা স্ত্রীদের প্রতি নিজের ভালোবাসা বোঝাতে ঘরের কাজকর্মেও হাত লাগান। এমনকি স্ত্রীর কাপড়ও ধুয়ে দেন তারা। আর যে স্বামীরা তাদের স্ত্রীকে বেশি ভালোবাসেন মধ্যে সহ'বাসের সম্ভাবনাও বেশি থাকে।

এক্ষেত্রে গবেষকরা বলেছেন, এটি এই ধারণাকে সমর্থন করে যে পু'রুষরা তাদের ভালোবাসা প্রকাশের জন্য এটিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হিসাবে ব্যবহার করে থাকেন। আর স্ত্রীরা সহ'বাসের থেকে অনেক বেশি পছন্দ করেন ভালোবাসার মানুষটিকে জড়িয়ে ধরতে ও চুম্বন করতে।সমীক্ষাটি ‘ব্যক্তিত্ব এবং সামাজিক মনোবিজ্ঞান বুলেটিন’-এ প্রকাশিত হয়।

Check Also

স্কুল ড্রেসে দুর্দান্ত ড্যান্স দিয়ে ঝড় তুললো ছাত্রীরা, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় কোন কিছুই ভাইরাল হতে বিশেষ সময় লাগে না। ভালো হোক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *