Breaking News

যুক্তরাষ্ট্রে থেকেও ৫০০ পরিবারের দায়িত্ব নিলেন শাবানা!

দেশে নেই চলচ্চিত্র অভি’নেত্রী শাবানা। তো কী হয়েছে। দেশের মানুষের প্রতি ভালোবা’সা দেখানোর ইচ্ছা থাকলে তো সাত সমুদ্র তেরো নদীর ওপার থেকেও করা যায়। যুক্তরাষ্ট্রে থাকা দেশের চলচ্চিত্রের বরেণ্য অভিনয়শিল্পী শাবানা তেমনটাই করছেন। এই ক’রো’নায় যশোরের কেশবপুরে শ্বশুরবা’ড়ির এলাকার ৫০০ অসহায় ও অস’চ্ছল পরিবারের কাছে পৌঁছে দিয়ে’ছেন নিত্যপ্রয়ো’জনীয় সামগ্রী।

পরিবারসহ যুক্তরা’ষ্ট্রের নিউ জার্সিতে থাকা বাংলা’দেশি চলচ্চিত্রের বরেণ্য অভিনয়শিল্পী শাবানার ঈদ উপহার এরই মধ্যে পৌঁছে গেল কেশ’বপুর গ্রামে। গত বৃহস্পতিবার থেকে এলা’কাটির ৫০০ পরিবা’রের কাছে চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজ, আলু, চিনি, দুধ, সেমাইসহ নিত্যপ্র’য়োজনীয় পণ্য প্যাকে’টজাত করে পৌঁছে দেওয়ার কাজ করে’ছেন তাঁর পরিবারে পক্ষের লোকজন। যুক্তরাষ্ট্র থেকে এমনটাই জানি’য়েছেন তাঁর প্রযোজক স্বামী ওয়াহিদ সাদিক।

শাবানা বলেন, ‘করো’নার কা’রণে বিপ’র্যস্ত পৃথিবীর স্বল্প আয়ের মা’নুষেরা ভীষণ কষ্টে দিন যাপন করছেন। আমার দেশের মানুষদেরও কষ্টের খবর প্রতিনিয়ত পাচ্ছি। সর’কারের পক্ষ থেকে সহযো’গিতা করা হচ্ছে। বেসর’কারিভাবেও বি’ভিন্ন সংস্থা দেশের অসহায় ও অসচ্ছল মানুষের পাশে ভালো’বাসার হাত বাড়িয়ে’ছে।

আমরাও ভাবলাম, আমাদের সা’মর্থ্যের মধ্যে কিছু নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি নিয়ে কিছু পরিবারের পাশে থাকা দরকার। এতে করে আত্মিক’ভাবে প্রশান্তি আসবে। সেই চিন্তা থেকে এমন উদ্যোগ নেওয়া। এই কাজে আমার সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা ওয়া’হিদ সাদিক সাহেব।’ জানা গেছে, শাবানা ও ওয়া’হিদ সাদিক পরিবারের পক্ষের লোকজন কেশবপুরের ৫০০ অসহায় ও অ’সচ্ছল প’রিবারের তালিকা তৈরি করেন। এরপর তালিকা দেখে এই উপহার বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া’র কাজটি করেছেন।

ওয়াহিদ সাদিক বলেন, ‘প্রতিবছরই রোজার ঈদে আমরা এলাকা’র অস’চ্ছল পরিবারের জন্য ভালো’বাসার উপহার দিয়ে থাকি। এবার তো ঈদের আগে দেশের মানুষ করোনায় ভীষণ সংকটে দিন পার করছে। তারপর শাবানা ও আমি আ’লাপ করে ঠিক করলাম, কীভা’বে কী করতে পারি। এরপর ঈদের প্রয়ো’জনীয় সামগ্রীর পাশাপাশি নিত্যপ্রয়োজনীয় আরও কিছু দেওয়ার পরিকল্পনা করি। এই চরম সংক’টের দিনে আমাদের এই সামান্য উপ’হার তাঁদের কিছুদিনের কষ্ট হলেও লাগব করতে পারবে, এটাই শান্তি’র।’

শাবানা ও ওয়াহিদ সা’দিক জানান, শুধু ঈদ নয়, সংকটের এই সময়টা যদি দীর্ঘ হয়, তাহলে ভবিষ্যতেও নিজে’দের সামর্থ্য অনুযায়ী এলাকার মানুষ’দের পাশে থাকবেন তাঁরা। অভিনয় থেকে স্বেচ্ছা অব’সরে চলে যাওয়া শাবানা দুই দশকের বেশি স’ময় ধরে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে স্থা’য়ীভাবে বসবাস করছেন। তাঁর দুই মেয়ে বিয়ে করে সংসা’রী। আর স্বামী ও ছেলে’কে নিয়ে থাকেন তিনি।

Check Also

নিজের স্ত্রী ব্যাগে পেন খুঁজতে গিয়ে স্বামী এমন জিনিস দেখতে পেল যেটি দেখে তাঁর হুঁশ উড়ে গেল

একটি সম্পর্কের সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল বিশ্বাস। বিশ্বাস না থাকলে কোন সম্পর্ক ভালো জায়গায় থাকতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.