Breaking News

গর্ভাবস্থায় রসুন খেলে যে মারাত্মক বিপদ ঘটতে পারে

গর্ভাবস্থা একজন নারীর জন্য জীবনের একটি বিশেষ মুহূর্ত। এই সময় খাবার খাবার খাওয়া, চলাফেরা সবকিছুতেই নিতে হয় বাড়তি যত্ন।

চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এই সময় যে কোনো খাবার খাওয়া আপনার জন্য অনিরাপদ হতে পারে। এই সময় অনেক খাবার খেতেই নিষেধ করা হয়। গর্ভাবস্থায় রসুন খাওয়া নিয়েও রয়েছে নানা মত। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে এই সময় আপনি রসুন খেতে পারবেন। রসুন শরীরের জন্য একাধিক পুষ্টি, ভিটামিন এবং খনিজ সরবরাহ করে।

এতে থাকা প্রাকৃতিক অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল শরীরে র'ক্ত ​​প্রবাহকে স্বাভাবিক করে তোলে। হরমোনের ভারসাম্য ঠিক রাখে। নিয়মিত রসুন খেলে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে। এতে ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়ায় সংক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।

গর্ভাবস্থায় রসুন প্রাকৃতিক ওষুধ হিসেবে কাজ করবে। এই সময় নারীরা মানসিক চাপ অনুভব করেন, এর থেকে মুক্তি দেবে রসুন। এটি আপনার শরীরে প্রাকৃতিক অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়া তৈরি করবে। যা বিভিন্ন রোগ জীবাণু, ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করতে সাহায্য করবে। মনে রাখবেন-

> গর্ভাবস্থার প্রথম তিন মাস রসুন কম খাওয়াই ভালো। বিশেষ করে কাঁচা অবস্থায়। এতে মারাত্মক বিপদও ঘটতে পারে।
> অবশ্যই আপনাকে এই সময় রান্না করা রসুন খেতে হবে।

কোনোভাবেই কাঁচা রসুন খাবেন না।

> অল্প পরিমাণ রসুন প্রতিদিনই রান্নায় ব্যবহার করতে পারেন।
> এই সময় অনেকের স্বাদ এবং গন্ধের সমস্যা হয়। সেক্ষেত্রে রসুনের গন্ধ যদি ভালো না লাগে তবে খাওয়া বাদ দিতে পারেন।
> আপনার এই বিশেষ মুহূর্তে কোনো কিছু নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ মতো কাজ করুন।
সূত্র: টাইমসঅবইন্ডিয়া

ঘুম থেকে উঠে ভোরে মি’লন কমায় হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা, বলছে গবেষণা

আমাদের জীবনে এরকম অনেক ঘটনাই ঘটে যার সঠিক কোনো ব্যখ্যা নেই। প্রায়ই খবরের কাগজে বা নেট দুনিয়ায় এরম অনেক খবর আসে যা শুনলে অবাকই হতে হয়। এরকমই চাঞ্চল্যকর খবর প্রকাশিত হয়েছিল কয়েকদিন আগে। আপনি কি খুব ভোরে ঘুম থেকে ওঠেন ? আপনার কি বিয়ে হয়ে গেছে ? তাহলে আপনার জন্য রয়েছে এই চাঞ্চল্যকর খবর।

খবরে বলা হয়েছে ঘুম থেকে উঠে ভোরবেলা যদি আপনি মি'ল'নে লিপ্ত হতে পারেন তাহলে আপনার হার্টঅ্যাটাকের সম্ভবনা কমবে। কি শুনতে অবাক লাগছে তো ? কিন্তু গবেষণা এরকমই তথ্য দিচ্ছে যে ভোরে ঘুম থেকে উঠে যৌ’ন সম্পর্কে লিপ্ত হলে তা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।

আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ও এনার্জি বাড়িয়ে তুলতে মি'ল'ন যে অনস্বিকার্জ এমনটাই দ্বাবি করেছেন গবেষকরা। ভোরে র'ক্ত চলাচল খুব ভালো হয় আর যৌ’নমি'ল'নের সময় র'ক্ত সরবারহ ভালো হয়, তাই এমন ধারনা করা হচ্ছে।

যৌ’ন মি'ল'ন শরীরের জন্য উপকারী এমনটাই বলা হচ্ছে। যৌ’ন মি'ল'ন দুশ্চিন্তা রোধ করে। এমনকি র'ক্তচাপ নিয়ন্ত্রন করতে সহায়তা করে। নিয়মিত যৌ’নমি'ল'ন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়াও যৌ’নমি'ল'ন দুশ্চিন্তা রোধে সহায়তা করে।

এক সমীক্ষায় দেখা গেছে ২৪ জন পু'রুষ ও ২২ জন মহিলাকে যাদের স্বাভাবিকের তুলানায় বেশি ঝামেলার কাজ দেওয়া হয় এবং তারা শারীরিক মি'ল'নের সময় অনেক বেশি দুশ্চিন্তামুক্ত ছিল। দেখা গেছে সপ্তাহে একবার বা দুবার যৌ’নমি'ল'ন করলে অ্যান্টিবডির স্তর বৃদ্ধি হয় যা ঠান্ডা লাগা রোধ করে।

যৌ’নমি'ল'নে হার্টঅ্যাটাকের আশঙ্কা কমে। একাধিক গবেষণায় প্রমানিত হয়েছে নিয়মিত শারীরিক মি'ল'নে লিপ্ত হলে হার্টঅ্যাটাক ও স্ট্রোকের আশঙ্কা হ্রাস পায়। গবেষণাপত্রে দেখা গেছে যারা সপ্তাহে ৩ বার মি'ল'ন করেন তাদের হার্টের স্বাস্থ্যের উন্নতি হয় আর মস্তিস্কে র'ক্ত সরবারহ বেড়ে যাওয়ার জন্য স্ট্রোকের সম্ভবনা হ্রাস পায়।

এছাড়াও ভোরে উঠে মি'ল'ন আপনার পার্টনারের সাথে একটা ভালো দিন শুরু করার ক্ষেত্রে কাজে আসবে। আপনি সকালে উঠে মুড চাঙ্গা করার জন্য হালকা মিউসিক চালিয়ে এই কাজটি করতেই পারেন। এতে আপনি শারীরিকভাবে স্ট্রং হবেন আর আপনার দিনটিও ভালো যাবে।

Check Also

যারা বাচ্চাকে সাড়ে ৩-৪ বছরে স্কুলে দিবেন ভাবছেন, তাদের জন্য খুবই জরুরী এই পোস্ট

আমাদের দেশের স্কুল মানেই একেবারে সিরিয়াস লেখাপড়া। আর আপনারা এখন খেলার ছলে শিখাচ্ছেন তাই শিখছে।স্কুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published.