প্রতিদিন মাত্র ১টি কলা খেয়ে, দূর করুন এই ১২টি স্বাস্থ্য সমস্যা খুব সহজেই!

অতিপরিচিত সস্তা একটি ফল হলো কলা। সারা বছর পাওয়া যায় এ ফলটি। কিন্তু এ ফলটি খেতে আমরা অনেকেই পছন্দ করি না। আবার অনেকে মনে করেন কলা শরীরকে মোটা করে তোলে। অথচ নিয়মিত কলা খেলে হজমক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

কলা দৈনন্দিন অনেক পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে দেহকে সুস্থ রাখে। তাই প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রাখুন ১টি কলা, আর দেখুন এর ম্যাজিক। তাহলে জেনে নেয়া যাক বিডি রমণীর দেয়া প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় কলা রাখার উপকারিতা।

১. কলা একটি আঁশযুক্ত ফল। এটি হজমশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। হজমের সমস্যা দূর করতে প্রতিদিন ১টি করে কলা খান।
২. শরীরে হিমোগ্লোবিন ও ইনসুলিনের জন্য প্রচুর ভিটামিন-বি৬ প্রয়োজন। আর কলায় প্রচুর ভিটামিন-বি৬ আছে, যা দেহে পুষ্টি জুগিয়ে থাকে।

৩. প্রতিদিন ৩টি করে কলা খেলে আপনার র'ক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করবে। যারা উচ্চ র'ক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন, তাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় কলা রাখুন, দেখবেন র'ক্তচাপ আপনার নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে।
৪. প্রতিদিন ব্যায়াম করার আগে ২টি কলা খেয়ে নিন। এটি আপনার দেহের র'ক্তে শর্করার পরিমাণ ঠিক রাখবে এবং তার সঙ্গে বস্নাড সুগারও নিয়ন্ত্রণ করবে।

কলা দৈনন্দিন অনেক পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে দেহকে সুস্থ রাখে। তাই প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রাখুন ১টি কলা, আর দেখুন এর ম্যাজিক। তাহলে জেনে নেয়া যাক বিডি রমণীর দেয়া প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় কলা রাখার উপকারিতা।

১. কলা একটি আঁশযুক্ত ফল। এটি হজমশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। হজমের সমস্যা দূর করতে প্রতিদিন ১টি করে কলা খান।
২. শরীরে হিমোগ্লোবিন ও ইনসুলিনের জন্য প্রচুর ভিটামিন-বি৬ প্রয়োজন। আর কলায় প্রচুর ভিটামিন-বি৬ আছে, যা দেহে পুষ্টি জুগিয়ে থাকে।

৩. প্রতিদিন ৩টি করে কলা খেলে আপনার র'ক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করবে। যারা উচ্চ র'ক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন, তাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় কলা রাখুন, দেখবেন র'ক্তচাপ আপনার নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে।
৪. প্রতিদিন ব্যায়াম করার আগে ২টি কলা খেয়ে নিন। এটি আপনার দেহের র'ক্তে শর্করার পরিমাণ ঠিক রাখবে এবং তার সঙ্গে বস্নাড সুগারও নিয়ন্ত্রণ করবে।

৫. কলায় প্রচুর আয়রন আছে। ফলে নিয়মিত কলা খেলে দেহের র'ক্তশূন্যতা দূর হয়।
৬. কলা ওজন কমাতেও সাহায্য করে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, কলা দীর্ঘক্ষণ পেট ভরার অনুভূতি দিয়ে থাকে। ফলে অন্য কোনো খাবার খাওয়ার রুচি ও আগ্রহ থাকে না, যা ওজন কমাতে সাহায্য করে।

৭. এক গবেষণায় বলা হয়েছে, আঁশযুক্ত খাবার কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঝুঁকি কমায়। প্রতিদিন কলা খান আর হৃদরোগ থেকে দূরে থাকুন।
৮. শরীরের পেশির সুস্থতার জন্যও কলা বেশ উপকারী। ব্যায়ামের আগে কিংবা পরে কলা খান এটি আপনার পেশির সমস্যা দূর করবে এবং পায়ের মজবুত পেশি গঠনে সাহায্য করে।

৯. আমরা অনেকেই মনে করি লেবু, আর কমলাতেই শুধু ভিটামিন সি আছে। কিন্তু মজার ঘটনা কলায়ও পাওয়া যায় কিছু ভিটামিন সি। এ ছাড়া প্রয়োজনীয় অনেক পুষ্টি উপাদান পাওয়া যায় কলা থেকে।
১০. কলায় প্রচুর ম্যাগনেসিয়াম আছে যা বিষণতা দূর করতে সাহায্য করে। আমরা অনেক সময় বিভিন্ন কারণে বিষণতায় ভুগি। এ বিষণতা দূরীকরণে কলা অনেক বেশি কার্যকর।

১১. কলা দেহের শক্তি বৃদ্ধি করে। কলায় প্রচুর ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন, মিনারেল আছে যা দেহের এনার্জি লেভেল ঠিক রেখে শক্তির বৃদ্ধি ঘটায়। প্রতিদিন নাশতায় ১টি কলা রাখুন, যা আপনাকে সারা দিনে কাজে এনার্জি দেবে।
১২. কলায় প্রচুর পটাশিয়াম আছে, যা মস্তিষ্কে অক্সিজেন সরবরাহ করে।
৫. কলায় প্রচুর আয়রন আছে। ফলে নিয়মিত কলা খেলে দেহের র'ক্তশূন্যতা দূর হয়।

৬. কলা ওজন কমাতেও সাহায্য করে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, কলা দীর্ঘক্ষণ পেট ভরার অনুভূতি দিয়ে থাকে। ফলে অন্য কোনো খাবার খাওয়ার রুচি ও আগ্রহ থাকে না, যা ওজন কমাতে সাহায্য করে।
৭. এক গবেষণায় বলা হয়েছে, আঁশযুক্ত খাবার কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঝুঁকি কমায়। প্রতিদিন কলা খান আর হৃদরোগ থেকে দূরে থাকুন।

৮. শরীরের পেশির সুস্থতার জন্যও কলা বেশ উপকারী। ব্যায়ামের আগে কিংবা পরে কলা খান এটি আপনার পেশির সমস্যা দূর করবে এবং পায়ের মজবুত পেশি গঠনে সাহায্য করে।
৯. আমরা অনেকেই মনে করি লেবু, আর কমলাতেই শুধু ভিটামিন সি আছে। কিন্তু মজার ঘটনা কলায়ও পাওয়া যায় কিছু ভিটামিন সি। এ ছাড়া প্রয়োজনীয় অনেক পুষ্টি উপাদান পাওয়া যায় কলা থেকে।

১০. কলায় প্রচুর ম্যাগনেসিয়াম আছে যা বিষণতা দূর করতে সাহায্য করে। আমরা অনেক সময় বিভিন্ন কারণে বিষণতায় ভুগি। এ বিষণতা দূরীকরণে কলা অনেক বেশি কার্যকর।

১১. কলা দেহের শক্তি বৃদ্ধি করে। কলায় প্রচুর ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন, মিনারেল আছে যা দেহের এনার্জি লেভেল ঠিক রেখে শক্তির বৃদ্ধি ঘটায়। প্রতিদিন নাশতায় ১টি কলা রাখুন, যা আপনাকে সারা দিনে কাজে এনার্জি দেবে।
১২. কলায় প্রচুর পটাশিয়াম আছে, যা মস্তিষ্কে অক্সিজেন সরবরাহ করে।

Check Also

স্কুল ড্রেসে দুর্দান্ত ড্যান্স দিয়ে ঝড় তুললো ছাত্রীরা, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় কোন কিছুই ভাইরাল হতে বিশেষ সময় লাগে না। ভালো হোক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *