Breaking News

মি’লনের সময় নাভিতে মুখ দেওয়া কতটা ভ’য়ঙ্কর তা অনেকেই জানেন না!

স’ঙ্গিনীকে খুশি করতে মি’লনের আগে ফোরপ্লে করার সময় অনেক পুরু’ষই পার্টনারের নাভিতে চুমু খেয়ে তাকে উ’ত্তেজিত করার চেষ্টা করে থাকেন। কিন্তু আসলে এটি করা বি’পজ্জনক। কারণ, মি’লনের সময় নাভিতে মুখ দেওয়ার আগে অন্তত দশ বার ভাবুন । কারণ, বিশেষজ্ঞরা বলছেন ৬৭ রকমের জী’বাণুর নিরাপদ নিশ্চিন্ত আস্তানা হল আমাদের নাভীর মধ্যে।

মানুষের শ’রীরের মধ্যে সবচেয়ে নোং’রা জায়গা হল নাভি। শ’রীর থেকে ঘাম চুঁয়ে জড়ো হয় আপনার নাভিতে। দিনের পর দিন নাভি গ’র্ভেই সেই ঘাম শুকায়। ঘামের স’ঙ্গেই মেশে নোং’রা-ধুলো। রয়েছে মরা ত্বক। গায়ে লোশন মাখলেও তা জমে এই নাভিতেই।

দ্য বেলি বাটন বায়োডাইভার্সিটি প্রজেক্টে কাজ করতে গিয়ে গবেষকরা এই নাভির মধ্যে ৬৭ রকমের ব্যাক্টিরিয়ার উপস্থিতি টের পেয়েছেন। যা এতদিন আমাদের অজানাই ছিল। কাম উ’ত্তেজনার বশীভূত হয়ে জিভের সূত্রে এই ব্যাক্টেরিয়া শ’রীরের অভ্যন্তরে প্রবেশের সুযোগ পেলে কী হবে, আশা করি আপনাদের বুঝতে বাকি নেই স’ঙ্গিনীকে খুশি করতে মি’লনের আগে ফোরপ্লে করার সময় অনেক পুরু’ষই পার্টনারের নাভিতে চুমু খেয়ে তাকে উ’ত্তেজিত

করার চেষ্টা করে থাকেন। কিন্তু আসলে এটি করা বি’পজ্জনক। কারণ, মি’লনের সময় নাভিতে মুখ দেওয়ার আগে অন্তত দশ বার ভাবুন । কারণ, বিশেষজ্ঞরা বলছেন ৬৭ রকমের জী’বাণুর নিরাপদ নিশ্চিন্ত আস্তানা হল আমাদের নাভীর মধ্যে।

মানুষের শ’রীরের মধ্যে সবচেয়ে নোং’রা জায়গা হল নাভি। শ’রীর থেকে ঘাম চুঁয়ে জড়ো হয় আপনার নাভিতে। দিনের পর দিন নাভি গ’র্ভেই সেই ঘাম শুকায়। ঘামের স’ঙ্গেই মেশে নোং’রা-ধুলো। রয়েছে মরা ত্বক। গায়ে লোশন মাখলেও তা জমে এই নাভিতেই।

দ্য বেলি বাটন বায়োডাইভার্সিটি প্রজেক্টে কাজ করতে গিয়ে গবেষকরা এই নাভির মধ্যে ৬৭ রকমের ব্যাক্টিরিয়ার উপস্থিতি টের পেয়েছেন। যা এতদিন আমাদের অজানাই ছিল। কাম উ’ত্তেজনার বশীভূত হয়ে জিভের সূত্রে এই ব্যাক্টেরিয়া শ’রীরের অভ্যন্তরে প্রবেশের সুযোগ পেলে কী হবে, আশা করি আপনাদের বুঝতে বাকি নেইস’ঙ্গিনীকে খুশি করতে মি’লনের আগে ফোরপ্লে করার সময় অনেক পুরু’ষই পার্টনারের নাভিতে চুমু খেয়ে তাকে উ’ত্তেজিত

করার চেষ্টা করে থাকেন। কিন্তু আসলে এটি করা বি’পজ্জনক। কারণ, মি’লনের সময় নাভিতে মুখ দেওয়ার আগে অন্তত দশ বার ভাবুন । কারণ, বিশেষজ্ঞরা বলছেন ৬৭ রকমের জী’বাণুর নিরাপদ নিশ্চিন্ত আস্তানা হল আমাদের নাভীর মধ্যে।

মানুষের শ’রীরের মধ্যে সবচেয়ে নোং’রা জায়গা হল নাভি। শ’রীর থেকে ঘাম চুঁয়ে জড়ো হয় আপনার নাভিতে। দিনের পর দিন নাভি গ’র্ভেই সেই ঘাম শুকায়। ঘামের স’ঙ্গেই মেশে নোং’রা-ধুলো। রয়েছে মরা ত্বক। গায়ে লোশন মাখলেও তা জমে এই নাভিতেই।

দ্য বেলি বাটন বায়োডাইভার্সিটি প্রজেক্টে কাজ করতে গিয়ে গবেষকরা এই নাভির মধ্যে ৬৭ রকমের ব্যাক্টিরিয়ার উপস্থিতি টের পেয়েছেন। যা এতদিন আমাদের অজানাই ছিল। কাম উ’ত্তেজনার বশীভূত হয়ে জিভের সূত্রে এই ব্যাক্টেরিয়া শ’রীরের অভ্যন্তরে প্রবেশের সুযোগ পেলে কী হবে, আশা করি আপনাদের বুঝতে বাকি নেই

Check Also

নিজের স্ত্রী ব্যাগে পেন খুঁজতে গিয়ে স্বামী এমন জিনিস দেখতে পেল যেটি দেখে তাঁর হুঁশ উড়ে গেল

একটি সম্পর্কের সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল বিশ্বাস। বিশ্বাস না থাকলে কোন সম্পর্ক ভালো জায়গায় থাকতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.