খাবার খাওয়ার আগে বা পরে জল খান? তাহলে অবশ্যই এই ব্যাপারে সা’বধা’ন হন

কখন জল খাবেন দেখুন জল আপনার তখনই খাওয়া উচিত যখন আপনার তেষ্টা পাচ্ছে। কারণ জল আমরা তেষ্টা পেলেই খেয়ে থাকি। ঠিক যেমন আমরা খি’দে পেলেই খাবার খাই, অন্য সময়ে নয়, তেমনই জ’ল খাওয়া উচিত যখন তেষ্টা পাবে। কিন্তু তাঁর মধ্যেও আমাদের কয়েকটি কথা মাথায় অবশ্যই রাখতে হবে।

খাবার খাওয়ার আগে জ’ল?খাবার খাওয়ার আগে জ’ল খাওয়াটা কিন্তু আয়ুর্বেদ মতে হা’নি’কা’রক। এর পিছনে সু’স্প’ষ্ট ভাবনাও রয়েছে। খাবার খাওয়ার ঘণ্টা খানেক আগে জল খেলে তা আমাদের হ’জ’ম ক্ষ’ম’তা, আয়ু’র্বে’দ যাকে বলে ‘অ’গ্নি’ তাঁর ক্ষ’ম’তা কমিয়ে দেয়।

যেহেতু জ’ল ঠা’ণ্ডা, তাই তা পা’চ্য র’সকে কাজ করতে বাঁ’ধা দেয়। পা’চ্য রসের উৎ’সেচনে ঘা’টতি তৈরি হয়। আর এটা খাদ্য প’রিপা’ক ত’ন্ত্রে’র বি’পরীত। তাই খাবার খাওয়ার ঘণ্টা খানেক আগে জল খাওয়া ঠিক নয়।

খাবার খাওয়ার ঠিক পরে জল?আ’য়ুর্বেদ এ ক্ষেত্রেও কিন্তু অ’নুমতি দিচ্ছে না। আসলে খাবার খাওয়ার পর আমাদের পা’কস্থ’লীতে প’রিপা’কের কাজ চলে। আর প’রিপা’কের জন্য প’রিপা’ক র’সের দরকার।

নানা রকম এ’নজা’ইম যখন এই কাজটি করে তখন যদি পা’কস্থ’লীতে জ’ল যায়, তাহলে যথেষ্ট পরিমাণে এনজাইম ক্ষ’র’ণ ব’ন্ধ হয়ে যায়। ফলে খাবার হ’জ’ম হতে স’ম’স্যা হয়। তাই খাবার খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই জ’ল খাওয়া ঠিক নয়।

খাবার খাওয়ার সময়ে জল?আয়ুর্বেদ কিন্তু এক্ষেত্রে আপনাকে অনুমতি দিচ্ছে। খাবার খাওয়ার সময়ে জল আপনি খেতে পারেন। এতে বরং খানিক উপকারই হবে। আসলে খাবার যখন আমরা খাই তখন যদি আমরা জল খাই তাহলে খাবারের কণা নর’ম হয়ে যায়।

তাঁর ফলে খাবার খুব সহজেই ভে’ঙে যায়। আর তাই খুব সহজেই খাবার প’রিপা’ক হয়ে যায়, হ’জ’ম হতে সু’বিধে হয়। আর আমরা যখন ম’শ’লাদার কিছু খাই তখন আমাদের আরও বেশি করে জ’ল তে’ষ্টা পায়। তখন আমরা খানিক জ’ল যদি খাই তা কিন্তু অ’পকার করে না।

কিছু মনে রাখার কথা ১. তবে খাবার খেতে খেতে জল খাওয়ার সময়ে কিছু কথা মনে রাখা অবশ্যই দরকার। যেমন, জ’ল খেতে বলা হচ্ছে মানে এই নয় যে জল আপনি এক সঙ্গে এক গ্লাস খেয়ে নিলেন। আপনাকে জ’ল খেতে হবে সামান্য পরিমাণে, যাকে বলে গ’লা ভে’জা’নোর মতো।

যদি আপনি বেশি জল খান তাহলে পা’কস্থ’লী জ’লেই ভরে যাবে। খাবারের জন্য সেখানে আর জায়গা থাকবে না। তাই আপনার যথেষ্ট পরিমাণে খাবার খাওয়া হবে না। এটা স্বা’স্থ্যে’র পক্ষে খুবই ক্ষ’তিকা’রক।

২. আর তাছাড়া যদি ম’শ’লাদার খাবার খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই অনেক জল খান, তাহলে সেই জ’লে তেল ভাসতে থাকে যা অ’ম্বল, গ্যা’স এই সবের জন্য দা’য়ী। তাই জন্য বলা হয় জ’ল খেতে হবে প’রিমিত।

৩. আর মনে রাখতে হবে জল যেন হয় সাধারণ তা’পমা’ত্রায়। খুব ঠা’ণ্ডা জল অর্থাৎ ফ্রি’জের জল খাওয়া সেই সময়ে ঠিক নয়। কারণ আগেই বলা হয়েছে, জল এমনিতেই প’রিপা’কে ব্যা’ঘা’ত ঘ’টা’য়।

তাঁর মধ্যে ঠা’ণ্ডা জ’ল তো সেটা আরও বেশি করে করে। শরীর বেশি করে ট’ক্সি’ফা’য়ে’ডও হয়ে যেতে পারে এর ফলে। তাই জল খান ঘরের তা’পমা’ত্রা’য় নিয়ে গিয়ে। তাহলে এবার আর মনে কোনও দ্বি’ধা রাখবেন না। ঠিক ভাবে নির্দিষ্ট পরিমাণে জল খান আর সু’স্থ থাকুন। সঙ্গে এরকম আরও টিপস জানতে দা’শবা’সের পেজ লাইক করুন।

Check Also

হটাত করে নাক-কান-গলায় কিছু ঢুকে গেলে কী করবেন? জেনে রাখুন।

অনেকসময় না বুঝেই শিশুরা কিছু জিনিস নাক-কান কিংবা গলায় দিয়ে ফেলে। অনেক সময় তা বিপজ্জনকও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *