Breaking News

প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন মা, কাঁদছে ১৪ মাসের শিশু

বছর তিনেক আগে মা-বাবার পছন্দের ছেলেকে বিয়ে করেন আয়েশা আক্তার প্রিয়া। ধুমধাম করে তাদের বিয়ে হয়। তবে বিয়ের আগ থেকেই আরেকজনের সঙ্গে প্রিয়ার প্রেম ছিল। স্বামী বিদেশ থাকায় প্রেমিকের সঙ্গে নিয়মিত দেখা করতেন প্রিয়া। অবশেষে ১৪ মাসের সন্তান রেখে টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে সেই প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়েছেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের ব্রহ্মপাড়া গ্রামে। ২৮ জানুয়ারি সকালে তিন লাখ টাকা ও সাত ভরি স্বর্ণ নিয়ে প্রেমিক মারুফের সঙ্গে পালান প্রিয়া।

আয়েশা আক্তার প্রিয়ার বাড়ি কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের ব্রহ্মপাড়া গ্রামে। তার বাবার নাম মো. দেলোয়ার হোসেন। আর মারুফ একই গ্রামের দুলাল হোসেনের ছেলে।

জানা গেছে, ২০১৭ সালে চাটখিল উপজেলার পরকোট ইউনিয়নের পশ্চিম শোশালিয়া গ্রামের শহীদ উল্যার ছেলে সৈয়দ আহম্মদের সঙ্গে প্রিয়ার পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর ভালোই কাটছিল তাদের সংসার। ১৪ মাস আগে প্রিয়ার ঘরে জন্ম নেয় ফুটফুটে ছেলে সন্তানও। ২৮ জানুয়ারি সকালে রামগঞ্জ ইসলামী ব্যাংক শাখা থেকে তিন লাখ টাকা তোলেন প্রিয়া। পরে টাকাসহ সাত ভরি স্বর্ণ নিয়ে প্রেমিক মারুফের সঙ্গে পালিয়ে যান তিনি।

এ ঘটনায় রামগঞ্জ থানায় জিডি করেন প্রবাসী সৈয়দ আহম্মদের ভাই ফয়েজ আহম্মেদ। কিন্তু এক সপ্তাহ পার হলেও তাদের উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

প্রবাসীর ভাই ফয়েজ আহম্মেদ জানান, প্রিয়া পালিয়ে যাওয়ার পর থেকে ১৪ মাসের শিশু আমির হামজার কান্না কোনোভাবেই থামানো যাচ্ছে না। খাওয়ানো যাচ্ছে না কোনো খাবার।

মারুফের বাড়ির লোকজন জানান, বিয়ের আগ থেকেই মারুফের সঙ্গে প্রিয়ার প্রেম ছিল। আর সেই সম্পর্কের জের ধরে তারা দুজনে পালিয়েছেন।

Check Also

নিজের স্ত্রী ব্যাগে পেন খুঁজতে গিয়ে স্বামী এমন জিনিস দেখতে পেল যেটি দেখে তাঁর হুঁশ উড়ে গেল

একটি সম্পর্কের সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল বিশ্বাস। বিশ্বাস না থাকলে কোন সম্পর্ক ভালো জায়গায় থাকতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.