হাসিতে মেহজাবীন, অভিনয়ে মিমি

‘ছোট ছোট বাইটে জমে উঠবে সময়’ স্লোগানে নির্মিত ইস্পাহানি বিস্কুট লাইট বাইটের বিজ্ঞাপন দিয়ে পরিচিতি পান তরুণ মডেল ও অভিনেত্রী তটিনি। প্যারাসুট অ্যাডভান্সড এক্সট্রা কেয়ারের বিজ্ঞাপন দিয়ে দুই বছর আগে শোবিজে যাত্রা শুরু করলেও প্রশংসিত হতে থাকেন বাটারফ্ল্যাই, নেসক্যাফে, ইস্পাহানি মির্জাপুর চায়ের বিজ্ঞাপনে। তবে যেন নতুন করে প্রশংসার পাশাপাশি আলোচিত হতে শুরু করেন সদ্য প্রচারে আসা ধারবাহিক নাটক ‘হাউস নং ৯৬’ দিয়ে। এখানে তিনি অভিনয় করেছেন আফরান নিশোর ছোট বোন ‘রাফা’ চরিত্রে।

বিজ্ঞাপন দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করলেও অভিনয়ে আসেন গেল বছরের তুমুল আলোচিত ওয়েব ফিল্ম ‘তাকদীর’ দিয়ে। সেখানে সাংবাদিক আনিকা চরিত্রে অভিনয় করে ইতিমধ্যেই দর্শকমহলে প্রশংসিত হয়েছেন। তারই ধারবাহিকতায় অভিনয় করেন মাহমুদুর রহমান হিমি পরিচালিত ‘হাউস নং ৯৬’ নাটকে। প্রচারে আসতেই তটিনি যেন রাফা নামেই পরিচিতি পাচ্ছেন বেশি। অন্তর্জালে বাড়ছে অনুসারীর সংখ্যা।

এ বিষয়ে ‘তাকদীর’ খ্যাত এই অভিনেত্রী বলেন, ‘সত্যি বলতে নাটকটিতে অভিনয়ের পর থেকে আমার বন্ধু-বান্ধব,পরিবার, কাছের মানুষসহ অনেক মানুষের শুভেচ্ছা ও প্রশংসা পেয়েছি। এটা আমার অভিনীত প্রথম কোনো নাটক। বেশকিছু বিজ্ঞাপনে কাজ করা হলেও নাটকে এবারই প্রথম। এতটুকু অনুভব করতে পারছি যে, তটিনি এখন ‘রাফা’ হয়ে গিয়েছে। এরজন্য অবশ্যই পরিচালক হিমি ভাইয়াকে অসংখ্য ধন্যবাদ, সেইসাথে নিশো ভাইয়াকেও। উনারা অনেক হেল্প করেছেন কাজের ক্ষেত্রে।

আর অনেক আগে মানুষ ধারাবাহিক নাটক দেখতো বেশি, এখন খুব একটা দেখে না। কিন্তু তারপরও এখন কিছু ভালো ভালো কাজ হচ্ছে যেগুলো দর্শক দেখছে। তার মধ্যে আমার অভিনীত নাটকটিও দেখছে দর্শকরা। সত্যি অনেক ভালো লাগছে।’

২০১৯ সালের শুরুতে ‘রান আউট ফিল্মস’ প্রোডাকশনের নির্মাতা সাবরিনা আইরিনের হাত ধরেই শোবিজে আসেন তটিনি। এরপর কাজ করেন প্যারাসুটের বিজ্ঞাপনে। সেটি প্রচারে আসার পর একই বছরে ডাক পান সিটি ব্যাংক, বাটারফ্লাই, বিকাশ, হেনোলাক্স এর বিজ্ঞাপনে। এছাড়াও তিনি কাজ করেন এয়ারটেল, পন্ডস, রবি, ইস্পাহানি বিস্কুট, ইস্পাহানি মির্জাপুর চায়ের বিজ্ঞাপনে। সৈয়দ শাওকী পরিচালিত ‘তাকদীর’ ওয়েব ফিল্মে প্রথম অভিনয় করেন তিনি। এরপরই যুক্ত হন ধারাবাহিক ‘হাউস নং ৯৬’ নাটকে।

তটিনি বলেন, ‘আমার শোবিজে আসা সাবরিনা আইরিন আপুর হাত ধরে। আজকে আমি যতটুকু যা কাজ করছি আমি বলবো তার সান্নিধ্যেই। উনি আমার কাছে আইডলের মত। আরেকজন মানুষের কথা বলতে চাই, তিনি হচ্ছেন আশফাকুজ্জামান বিপুল ভাইয়া। উনার সাথে আমার তিনটা বিজ্ঞাপন করা হয়েছে রবি, বিকাশ আর হেনোলাক্স।’

বিজ্ঞাপনে কাজ করতে বেশি পছন্দ করেন তরুণ এই অভিনেত্রী। তবে নিজেকে অভিনয়েও এগিয়ে রাখতে চান তিনি। শুরুটা ভালো কাজ ও ভালো ভালো নির্মাতাদের হাত ধরেই হয়েছে বলে আত্মবিশ্বাস রাখা এই তরুণ তুর্কী ভালো কাজের মাধ্যমেই সামনে এগিয়ে যেতে চান। অভিনয়ে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চান। তিনি বলেন, ‘আমি বিজ্ঞাপনে কাজ করতে খুব পছন্দ করি, এখানে অন্যরকম একটা ভালো লাগা কাজ করে। আর অভিনয়ে যেহেতু একদমই নতুন, এখানে শেখারও একটা বিষয় আছে। একটু একটু করে শিখতে চাই, এগুতে চাই।’

‘রাফা’ অনেকের কাছে প্রিয় হয়ে উঠলেও তার প্রিয় মানুষের তালিকায় রয়েছে আফসানা মিমি, শমী কায়সার ও মেহজাবীন চৌধুরীর নাম। আফসানা মিমি ও শমী কায়সারের অভিনয়, বাচনভঙ্গি, ব্যক্তিত্বে মুগ্ধ তটিনি, অন্যদিকে সময়ের ক্রেজ অভিনেত্রী মেহজাবীন চৌধুরীর হাসিতে ফিদা তিনি। এই অভিনেত্রীর মোহনীয় হাসি তার ভীষণ পছন্দ ও প্রিয়। আরেকজনের নাম না নিলেই নয়, যার অভিনয়ের ভীষণ ভক্ত তটিনি; তিনি চঞ্চল চৌধুরী। সুযোগ পেলে তার সঙ্গে কাজ করতে চান। দেশের বাইরে স্বস্তিকা মুখার্জি ও রাধিকা আপ্তেকে ভীষণ ভালো লাগে তার।

Check Also

স্কুল ড্রেসে দুর্দান্ত ড্যান্স দিয়ে ঝড় তুললো ছাত্রীরা, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় কোন কিছুই ভাইরাল হতে বিশেষ সময় লাগে না। ভালো হোক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *