একটি মুলার ওজন আট কেজি!

রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষক হাফিজুর রহমানের জমিতে ৮ কেজির বেশি ওজনের একটি মুলা পাওয়া গেছে। শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে নিজ জমি থেকে মুলাটি তোলেন ওই শিক্ষক। এরপর একটি মূলা ওজন করে দেখেন ৮ কেজি ৫৭ গ্রাম। পরে গ্রামের মোড়ে ওই মুলাটি নিয়ে গেলে দেখার জন্য উৎসুক জনতা ভিড় জমায়।

জানা গেছে, বাঘা আড়ানী ইউনিয়নের সোনাদহ গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষক হাফিজুর রহমান শখের বসে বাড়ির পাশে নিজ জমিতে কিছু মুলার চাষ করেন। অন্যগুলো তুলে নিলেও একটি মুলা তিনি আলাদাভাবে পরিচর্যা করেন। শনিবার সকালে জমি থেকে উঠিয়ে ওজন দিয়ে দেখে তিনি হতভম্ব হয়ে যান। হাফিজুর রহমান আড়ানী ডিগ্রি কলেজের মনোবিজ্ঞানের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক।

হাফিজুর রহমান বলেন, আমি ছোট থেকে নিজের জমিতে অন্যান্য সবজির আবাদ করি। তার সঙ্গে মুলার আবাদ করা হয়। গত বছর থেকে বাড়ির পাশে মুলার আবাদ শেষে জমিতে একটি-দুইটি রেখে বিশেষভাবে যত্ন নিয়ে থাকি। এত বড় আকারের মুলা হতে পারে এটা আমার জানা ছিল না।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিউল্লাহ সুলতান বলেন, মুলাটির বিষয়ে শুনেছি। বিশেষ পরিচর্যা নিলে ও জমির উর্বরতা বেশি থাকলে কোনও কোনও সময় এমন মুলা হতে পারে।

Check Also

যে কারণে উধাও হলো বগুড়ার সেই পুকুরের মাছ-পানি

দীর্ঘ বছরের পুরোনা পুকুর। হঠাৎ কী এমন হলো যে নিমিষেই পানি ও মাছ শূন্য হয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *