Breaking News

আগের স্ত্রীকে তালাক না দিয়েই মাহিয়া মাহিকে বিয়ে করেছেন রাকিব

আগের স্ত্রীকে তালাক না দিয়েই চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে বিয়ে করেছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রাকিব সরকার। এমনই অভিযোগ করেছেন রাকিবের প্রথম স্ত্রী। একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে রাকিবের স্ত্রী বিষয়টি জানিয়ে বলেন, রাকিব তাকে না জানিয়েই বিয়ে করেছেন, ‘তিনি মামলা করবেন প্রয়োজনে।’ এদিকে মাহি তার প্রথম স্বামী অপুকে ডিভোর্স দিয়েই রাকিবকে বিয়ে করেছেন।

প্রথম স্ত্রীর সংসারে রাকিব সরকারের দুই সন্তান রয়েছে বলেও জানা গেছে। ছেলের নাম সোয়াইব ও মেয়ের নাম সাইয়ারা। প্রথম স্ত্রী স্বপ্না আক্তারের অভিযোগ, তার সঙ্গে রাকিবের এখনও ডিভোর্স হয়নি। স্বপ্না আক্তার বর্তমানে গাজীপুরে রয়েছেন বলেই জানা গেছে।

রাকিব সরকার, ব্যবসায়ী ও গাজীপুরে এক রাজনীতিক পরিবারের সন্তান। তিনি নিজেও রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। সদ্য বিয়ে করা স্ত্রী চিত্রনায়িকা মাহিকে নিয়ে তিনি গাজীপুরেই আছেন। সঙ্গে রয়েছে তার প্রথম সংসারের দুই সন্তানও। রাকিব বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য।

এদিকে ২০১৬ সালের ২৫ মে জমকালো আয়োজনে সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে প্রথম বিয়ে করেছিলেন মাহিয়া মাহি। চলতি বছরের ২৪ মে তাদের পঞ্চম বিবাহ বার্ষিকীর আগমুহূর্তে মাহি জানান, একসঙ্গে থাকছেন না আর তারা। অন্যদিকে প্রথম স্বামী অপুও জানালেন তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ ঘটেছে।

এরপর গুঞ্জন ওঠে মাহি রকিব সরকার নামের এক রাজনীতিক-ব্যবসায়ীকে বিয়ে করছেন। তবে সেই বিষয়ে তখন ‘উই আর জাস্ট ফ্রেন্ড’ বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন এই চিত্রনায়িকা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে জানান, সেই ‘জাস্ট ফ্রেন্ড’ রকিবের সঙ্গেই দ্বিতীয় বিয়ের কাজটা সেরে ফেলেছেন তিনি।

আরো পড়ুন
সাবেক স্বামীকে খোঁচা দিলেন মাহি?

নায়িকা মাহিয়া মাহি গাজীপুরের ব্যবসায়ী-রাজনীতিবিদ রাকিব সরকারকে বিয়ে করেছেন (১২ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত ১২টা ৫ মিনিটে) দুদিন হলো। বিয়ের ছবিসহ খবরটি নিজেই প্রকাশ্যে আনেন। যদিও আগে থেকেই তাদের বিয়ের গুঞ্জন ছিল। মাহিয়া মাহির এই নতুন বিয়ের পর শুভ কামনা জানিয়েছেন তার সাবেক স্বামী সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপু।

কিন্তু অপু তাকে নতুন জীবনের শুভ কামনা জানালেও মাহি যেন তাকে খোঁচা দিলেন। নতুন বিয়ের দুই দিন পর বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করে মাহি লিখেছেন, ‘যখন আপনি কাউকে আপনার জীবন থেকে বাদ দেন, তখন তারা মানুষকে পুরো গল্পটি বলবে না, তারা কেবল তাদের সেই অংশটি বলবে; যা আপনাকে খারাপভাবে প্রকাশ করবে এবং তাদের নির্দোষ দেখাবে।’

মাহি তার স্ট্যাটাসে অপুর নাম উল্লেখ না করলেও তিনি যে তা সাবেক স্বামীকে নিয়েই লিখেছেন তা মনে করছেন নেটিজেনরা। মাহির এই পোস্টে মন্তব্য করেছেন তার বর্তমান স্বামী রাকিব সরকার। তিনি লিখেছেন, ‘কয়জন বড় হয় না, সয়জন বড় হয়।’ অপু গণমাধ্যমের কাছে মাহিকে নিয়ে কী বলেছিলেন?

তিনি বলেন, ‘বিয়ের খবর শুনেছি আগেই। আজ ফেসবুকে দেখলাম। তার নতুন জীবনের জন্য শুভ কামনা রইল। আমার পরিবারের মান-সম্মান অনেক বড়। এ ব্যাপারে আমি আর কথা বলতে আগ্রহী নই। আমি খুব সাধারণ মানুষ, সাধারণভাবেই জীবন-যাপন করতে চাই।’

Check Also

ভালো করে জুম করে ছবিটি দেখুন মেয়েটি কি করছে !

ছবিটি জুম করে দেখু’ন- আজকাল কার দিনে সোশ্যাল মিডিয়ার চলন সব থেকে বেশী হচ্ছে। এমন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *