Breaking News

বছরের সবচেয়ে বড় ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা

ভারতের আন্দামান সাগরে সম্ভাব্য লঘুচাপে সৃষ্টি হতে পারে বছরের সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’। আগামীকাল শুক্রবার (৬ মে) সম্ভাব্য এ লঘুচাপের প্রভাবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশা হয়ে বাংলাদেশের সাতক্ষীরা জেলায় আঘাত হানতে পারে বলে আশঙ্কা করছে বাংলাদেশের আবহাওয়া অফিস।

বৃহস্পতিবার (৫ মে) আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুখ জানান, দক্ষিণ আন্দামান সাগরের সম্ভাব্য লঘুচাপটি আগামীকাল সৃষ্টি হতে পারে। এখন পর্যন্ত সৃষ্টি হতে যাওয়া লঘুচাপটি পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িশা ও বাংলাদেশের দিকে মুখ করে আছে।

তবে এর গতিপথ একেক সময় একেক দিকে দেখাচ্ছে। তাই এর গতি আসলে কোন দিকে হবে তা বলা কঠিন। তবে প্রাথমিক ধারণা মতে এটি পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িশা ও বাংলাদেশে আঘাত হানতে পারে।
আজ বৃহস্পতিবার (৫ মে) সকাল থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বিজলি চমকানোসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

আজ বৃহস্পতিবার (৫ মে) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, বরিশাল, পটুয়াাখালী, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে পশ্চিম অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরসগুলোকে ২ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। আজ মাদারীপুরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২০.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। গতকালের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল খেপুপাড়ায় ৩৪.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পূর্বাভাসে আরো বলা হয়, পশ্চিমা লঘুচাপের বাড়তি অংশ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং এর কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

আজ সকাল থেকে ঢাকায় দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ১০ থেকে ১৫ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হচ্ছে, যা অস্থায়ীভাবে দমকায় পশ্চিম অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে।

সকালে ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৮৬ শতাংশ। ঢাকায় আজ সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬টা ২৯ মিনিটে এবং আগামীকাল শুক্রবার সূর্যোদয় ভোর ৫টা ২১ মিনিটে।

Check Also

“অসুস্থ বাচ্চাকে” নিয়ে হাসপাতালে আসলেন মা, বিড়াল -হৃদয়স্পর্শী ঘটনা।

“অসুস্থ বাচ্চাকে” নিয়ে হাসপাতালে আসলেন মা, বিড়াল -হৃদয়স্পর্শী ঘটনা। পথের ধারের একটি মা, বিড়াল তার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.