Breaking News

২ শতাধিক ব্যক্তির সঙ্গে শা’রীরিক স’ম্পর্ক নারী ব্যাংক কর্মক’র্তার

পাঁচজন-দশজন নয়! ২০০ জনেরও বেশি ব্যক্তির সঙ্গে শারীরিক স’ম্পর্ক করে চাকরি থেকে বরখাস্ত হয়েছেন এক নারী ব্যাংক কর্মক’র্তা। সম্প্রতি জাম্বিয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। ৩৯ বছর বয়সী ওই নারীর নাম মুটালে উইনফ্রিডা। তিনি জাম্বিয়ার জ্যানাকো ব্যাংকের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

জাম্বিয়ান অবজারভার’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শারীরিক স’ম্পর্কে জড়িয়ে পড়া ২০০ জন ব্যক্তির মধ্যে ব্যাংকের গ্রাহক থেকে চাকরিপ্রার্থীরাও ছিলেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ওই নারীকে বরখাস্ত করেছে ব্যাংক। জানা যায়, বাড়ি-গাড়ির ঋণ দেওয়ার আগে পু'রুষ গ্রাহকদের নিজের শয্যাসঙ্গী হতে বাধ্য করেন তিনি। এ ছাড়া চাকরি ‘পাকা’ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েও অনেক যুবকের সঙ্গে শারীরিক স’ম্পর্ক করেছেন উইনফ্রিডা।

কিন্তু একের পর এক অ’ভিযোগ জমা পড়ায় ব্যাংকের ওই নারী কর্মক’র্তার বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয়েছে ব্যাংক ৬০ দিনে ২০০ ধ’র্ষকের ঘুম হারাম করেছেন এই নারী পুলিশ নিয়োগ পাওয়ার মাত্র দুই মাসের মাথায় ২০০টি ধ’র্ষণ মামলার তদন্ত শেষ করেছেন পাকিস্তানের এক নারী পুলিশ। কুলসুম ফাতিমা নামের ওই স্টেশন হাউজ অফিসার (এসএইচও) দেশটির পাঞ্জাব প্রদেশের পাকপাতান জেলার প্রথম এসএইচও।

ফাতিমার এমন সাফল্য চারদিকে আলোচনার ঝড় তুলেছে। বিবিসিসহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম তার সাক্ষাৎকার প্রকাশ করেছে। ফাতিমা বলছেন, নাবালিকাদের প্রতি তার দেশের পু'রুষদের যে আচরণ সেটি তিনি কখনোই মানতে পারেননি। ভেতরে ভেতরে বিষয়টি নিয়ে তার একটি ক্ষোভ ছিল। সেই ক্ষোভ উগরে দেন চাকরি পাওয়ার পর।

‘সব সময় ভাবতাম কবে ধ’র্ষকদের শায়েস্তা করতে পারবো। সাব-ইন্সপেক্টরের পরীক্ষা দেওয়ার পর সেই সুযোগ পেয়ে যাই,’ বলছিলেন ফাতিমা। তিনি জানান, যা সবসময় করতে চেয়েছেন সেই দায়িত্ব পাওয়ায় তিনি দারুণ খুশি। এই নারী পুলিশ কর্মকর্তা ইতিমধ্যে সব তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন।

ফাতিমাকে নিয়োগ দেন জেলা পুলিশ অফিসার এবাদত নিসার। তিনি আশা করছেন, তার বিভাগে নারীদের অংশগ্রহণ আরও বাড়লে ধ’র্ষণের মতো অপরাধ দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আসবে। সরকারি কোনো কর্মকর্তা দুর্নীতি করলে তাকে গু’লি করার নির্দেশ দিলেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট

সরকারি কোনো কর্মকর্তা দুর্নীতি করলে তাকে গু’লি করার নির্দেশ দিয়েছেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রড্রিগো দুতের্তে। তবে, এমনভাবে গু’লি করতে হবে, যেন তিনি মা’রা না যান। সম্প্রতি দেশটির বাটান শহরে বিশেষ ব্যবসায়িক জোনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বক্তব্যে এ ঘোষণা দেন দুতের্তে।

ফিলিপিনো প্রেসিডেন্ট বলেন, আপনি ট্যাক্স দেন, বিল দেন বা কোনো সনদ নেন; আর কোনো কর্মকর্তা যদি ঘু’ষ দাবি করেন, তাকে মা’রুন। যদি অ’স্ত্র থাকে, তাকে গু’লি করতে পারেন, তবে হ’ত্যা করবেন না।

তিনি বলেন, আমি আপনার পক্ষ নেবো। যদি এ ঘটনা আমার কার্যালয় পর্যন্ত আসে, আমি অভিযোগকারীকে ডেকে বলবো, তাকে (আ’ক্র’মণ’কারী) তিনবার চড় মারতে। শরবত বিক্রেতা থেকে প্রেসিডেন্ট হাফেজ এরদোয়ান, এক শক্তিমান নেতা

জনপ্রিয় প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িফ এরদোয়ান। তুরস্কের রাজনীতিতে এক শক্তিমান নেতা। আধুনিক তুরস্কের জনক হিসেবে পরিচিত মুস্তাফা কামাল আতাতুর্কের পর নজিরবিহীন উন্নয়ন ও পরিবর্তনের প্রবর্তক তিনি।

তুরস্কের নতুন সংবিধান অনুযায়ী একচ্ছত্র আধিপত্য ভোগ করবেন দেশটির প্রেসিডেন্ট। আর প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টি (একেপি) রক্ষণশীল ইসলামী মূল্যবোধের উপর ভিত্তি করে দেশটি পরিচালনা করেন।

শরবত বিক্রেতা এরদোয়ান ১৯৫৪ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ইস্তাম্বুলের কাসিমপাসায় জন্ম গ্রহণ করেন। তারা বাবা তুরস্ক কোস্টগার্ডের একজন সদস্য হিসেবে চাকরি করতেন।

১৩ বছর বয়সে এরদোয়ান বাবার সঙ্গে ইস্তাম্বুলে আসেন। এরদোয়ানের বাবা সন্তানদের লেখা-পড়া শেখানোর উদ্দেশ্যেই ইস্তাম্বুল আসেন। তরুণ বয়সে এরদোয়ান সংসারের খরচ মেটাতে বাড়তি আয়ের জন্য লেবুর শরবত ও বিভিন্ন খাবার বিক্রি করতেন।

বাবাকে সংসার পরিচালনায় সহযোগিতার পাশাপাশি এরদোয়ান পড়ালেখাও ছিলেন সমান মনোযোগী। শৈশবেই তিনি ৩০ পুরো কুরআন মুখস্ত করে নিয়েছেন। ইস্তাম্বুলের মারমারা ইউনিভার্সিটি থেকে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে পড়ালেখা সম্পন্ন করেন। মারমারা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করার আগে এরদোয়ান ইস্তাম্বুলের একটি ইসলামিক স্কুলে পড়ালেখা করেছেন। ছাত্র জীবনে এরদোয়ান পেশাদার ফুটবলও খেলেছেন।

১৯৮৪ সাল থেকে রাজনীতিতে সক্রিয় হলেও এরদোয়ান ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠা করেন জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টি (একেপি)। প্রতিষ্ঠার অল্প দিনের মধ্যেই দলটি তুরস্কে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে ১ নম্বর অস্থানে চলে আসে।

তুরস্কের ইতিহাসে একদলীয় দল হিসেবে এবং সংসদীয় নির্বাচনে এরদোয়ান ৪ বার (২০০২, ২০০৭, ২০১১ এবং ২০১৪) সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।
২০১৪ সালের ২৮ আগস্ট তিনি তুরস্কের ১২তম রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেন। রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব নেয়ার আগে তিনি একে পার্টির সভাপতি ও প্রধান দলনেতা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

Check Also

“বিশ্ববাজারে” স্বর্ণের ধস, ব্যাপক অস্থিরতা

“বিশ্ববাজারে” স্বর্ণের ধস, ব্যাপক অস্থিরতা! গত সপ্তাহজুড়ে বি,শ্ববাজারে স্বর্ণের দামে ব্যাপক অস্থিরতা দেখা গেছে। হঠাৎ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.