হিল্লা বি’য়ে হলো ‘নাদিয়ার’

ইয়াকুব রাগের মা’থায় তার স্ত্রী’ তানিয়াকে তালাক দেন। পরক্ষণে বুঝতে পারেন এটি তার বড় ভুল হয়েছে। পরে তার স্ত্রী’কে ফিরে পেতে ম’রিয়া হয়ে ওঠেন ইয়াকুব। কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়ায় তার গ্রামের লোকজন।

গ্রামের মাতব্বররা সিদ্ধান্ত দেন হিল্লা বিয়ে ছাড়া কোনো অবস্থাতেই স্ত্রী’কে ফেরত পাবেন না ইয়াকুব। ঠিক হয় ইয়াকুবের দোকানের কর্মচারী বোকা কিচিমের সুমন ২০ হাজার টাকার বিনিময়ে তানিয়াকে বিয়ে করে আবার তালাক দেবেন।

কিন্তু সুমন তানিয়াকে বিয়ে করার পর তাকে তালাক দিতে অস্বীকৃতি জানান। ইয়াকুব নানা রকম ফন্দি ফিকির করেন সুমনের কাছ থেকে তার স্ত্রী’কে ফিরিয়ে আনার।

সুমন ‘নাছোড়বান্দা’ সবকিছু ছাড়তে রাজি হলেও তানিয়াকে ছাড়তে নারাজ। শুরু হয় সুমন ও ইয়াকুবের মধ্যে তানিয়াকে নিয়ে ‘ল’ড়াই’। ঘটতে থাকে মজার সব ঘটনা।এমন গল্প নিয়েই নির্মিত হয়েছে নাট’ক ‘হিল্লা বিয়ে’। টিপু আলম মি'ল'নের গল্পে নাট’কটি পরিচালনা করেছেন সরদার রোকন।

নাট’কে সুমন চরিত্রে অ’ভিনয় করেছেন রাশেদ সীমান্ত, তানিয়া চরিত্রে নাদিয়া আহমেদ, ইয়াকুব চরিত্রে অলিউল হক রুমি।বৈশাখী টিভিতে ঈদের দিন রাত ৮টা ১০ মিনিটে প্রচার হবে নাট’কটি।

Check Also

পরকীয়া কি সামাজিক নাকি মানসিক রোগ?

পরকীয়া একটি সুন্দর সংসার ও সমাজকে ছারখার করে দিচ্ছে। পরকীয়ার কবলে পড়ে ধ্বংস হচ্ছে সংসার, …